ঢাকা,সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪

স্মার্ট ফারমার্স কার্ড চালু করল ব্র্যাক ব্যাংক

সারাদেশের কৃষকদের জন্য সহজ ও স্মার্ট ব্যাংকিং সুবিধা প্রদানের লক্ষ্যে ব্র্যাক ব্যাংক একটি অনন্য ‘স্মার্ট ফারমার্স কার্ড’ চালু করেছে। এটি কৃষকদের জন্য প্রথম এ ধরনের কোন স্মার্ট কার্ড।

‘স্মার্ট ফার্মার্স কার্ড’ শুরুতে বাংলাদেশ ডেইরি ফার্মার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিডিএফএ) সদস্যদের দেওয়া হবে এবং পর্যায়ক্রমে দেশব্যাপী কৃষকরাও এর সুবিধা পাবেন।

এসএমই-ব্যবসায়ে বিশেষ অগ্রাধিকার দেওয়া ব্যাংক হিসেবে ব্র্যাক ব্যাংক সবসময় তৃণমূল উদ্যোক্তাদের চলমান ব্যাংকিং সেবার আওতায় আনার চেষ্টা করে আসছে। ব্যাংকের বিরামহীন প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে ক্ষুদ্র পর্যায়ের কৃষক ও খামারিদের উদ্যোক্তা হওয়ার স্বপ্নপূরণে কাজ করে ব্র্যাক ব্যাংক। বৃহৎ কৃষক জনগোষ্ঠীর আর্থিক অন্তর্ভুক্তি নিশ্চিত করতে ব্র্যাক ব্যাংক স্মার্ট ফারমার্স ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ড চালু করছে। এই কৃষক জনগোষ্ঠী জাতীয় অর্থনীতিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখেন।

বুধবার (২১ জুন) মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম ঢাকার একটি হোটেলে আয়োজিত অনুষ্ঠানে আনুষ্ঠানিকভাবে ভিসা ব্র্যান্ডের এই ‘স্মার্ট ফারমার্স কার্ড’-এর উদ্বোধন করেন।

মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. নাহিদ রশীদ; বাংলাদেশ ব্যাংকের পেমেন্ট সিস্টেমস বিভাগের পরিচালক মো. মোতাছিম বিল্লাহ; ব্র্যাংক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম আর. এফ. হোসেন; ব্র্যাংক ব্যাংকের উপ-ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও এসএমই ব্যাংকিং প্রধান সৈয়দ আব্দুল মোমেন এবং বাংলাদেশ ডেইরি ফারমার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি এম ইমরান হোসেন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

স্মার্ট ফারমার্স কার্ড ক্যাশলেস পরিবেশে সুবিধাজনক এবং সহজলভ্য আর্থিক সেবা প্রদান করবে, যা সরকার এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের রূপকল্পের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ। কৃষকদের লেনদেনের অতীত বিবরণের ওপর ভিত্তি করে ব্র্যাক ব্যাংক কৃষকদের লেনদেন-ভিত্তিক ঋণ সুবিধাও প্রদান করবে, যা প্রান্তিক কৃষকদের ভবিষ্যতে অর্থায়ন সুবিধা পাওয়ার লক্ষ্যে নিজেদের ঋণপ্রাপ্তি-যোগ্যতা তৈরি করতে সাহায্য করবে। এভাবে যোগ্য কৃষকরা ফারমার্স ক্রেডিট কার্ড পাওয়ার জন্য বিবেচিত হবেন। এই উদ্যোগের লক্ষ্য হলো, কৃষক ও গবাদিপশু খামারিদের চলমান ব্যাংকিং চ্যানেলে একীভূত করে তাদের ক্ষমতায়ন করা।

এই উদ্যোগের বিষয়ে মন্তব্য করতে গিয়ে ব্র্যাংক ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সেলিম আর. এফ. হোসেন বলেন, “ব্র্যাক ব্যাংক সূচনালগ্ন থেকেই তৃণমূল উদ্যোক্তাদের আর্থিক অন্তর্ভুক্তির লক্ষ্যে এসএমই অর্থায়নের ওপর বিশেষ জোর দিয়ে আসছে। এই স্মার্ট কার্ড উদ্যোগটি মূলত আমাদের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারপার্সন স্যার ফজলে হাসান আবেদের ব্যাংকিং সুবিধার বাইরে থাকা ব্যক্তিদের ব্যাংকিং চ্যানেলে আনার মাধ্যমে অর্থবহ সামাজিক প্রভাব সৃষ্টির রূপকল্পটি পূরণ করার ব্যাপারে আমাদের প্রতিশ্রুতি পুনর্ব্যক্ত করে।”

তিনি আরও বলেন, “আমরা বিশ্বাস করি এই স্মার্ট কার্ডগুলো আরও বেশি মানুষকে বাণিজ্যিকভাবে গবাদিপশু পালন শুরু করতে উৎসাহিত করবে এবং দেশের গবাদিপশু পালন খাতকে ত্বরান্বিত করবে। এটি দারিদ্র্য বিমোচন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি এবং বাংলাদেশের গ্রামীণ অর্থনীতিকে পুনরুজ্জীবিত করতে অনুঘটক হিসেবে কাজ করবে। আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি যে, এই উদ্যোগটি দেশের কৃষি খাতকে আরও প্রাণবন্ত এবং উজ্জীবিত করতে সাহায্য করবে।”

পাঠকের মতামত: