ঢাকা,শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪

ভোমরায় ৫০০ কোটি টাকার বেশি চাল আমদানি

সাতক্ষীরার ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে বেড়েছে চাল আমদানি। চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে ৫০০ কোটি টাকার বেশি চাল আমদানি হয়েছে এ বন্দর দিয়ে। গত অর্থবছরের একই সময়ের তুলনায় আমদানি বেড়েছে প্রায় ৩০ শতাংশ। আমদানীকৃত চালের মধ্যে রয়েছে মিনিকেট, নাজিরশাইল, স্বর্ণা, রত্না ও জামাইবাবু।

এ বিষয়ে ব্যবসায়ী ও আমদানিকারকরা বলছেন, দেশীয় বাজারে চালের চাহিদা বেশি থাকায় আমদানি বেড়েছে। এলসি ও ডলার সংকট না থাকলে আমদানি আরো বাড়ার সম্ভাবনা ছিল।

ভোমরা শুল্ক স্টেশনের রাজস্ব শাখা থেকে জানা গেছে, চলতি ২০২২-২৩ অর্থবছরের জুলাই-জানুয়ারি সাত মাসে ভোমরা স্থলবন্দর দিয়ে চাল আমদানি হয়েছে ১ লাখ ২৪ হাজার ৪০৫ টন, যার আমদানি মূল্য ৫০১ কোটি ৪৪ লাখ টাকা। এখান থেকে সরকারের রাজস্ব আয় হয়েছে ৩১ কোটি ৯ লাখ টাকা। অন্যদিকে গত ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে এ বন্দর দিয়ে আমদানি হয়েছে ৮৫ হাজার ৩১২ টন চাল, যার আমদানি মূল্য ছিল ২৯৫ কোটি ৬১ লাখ টাকা। আমদানীকৃত এসব চাল থেকে সরকারের রাজস্ব আয় হয়েছে ৪৪ কোটি ৩৪ লাখ টাকা। পরিমাণের দিক থেকে চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে চাল আমদানি গত বছরের একই সময়ের তুলনায় বেড়েছে ৩৯ হাজার ৯৩ টন।

ভোমরা শুল্ক স্টেশনের দায়িত্বরত কাস্টমসের ডেপুটি সহকারী কমিশনার নেয়ামুল হাসান জানিয়েছেন, গত অর্থবছরের তুলনায় চলতি অর্থবছরের প্রথম সাত মাসে এ বন্দর দিয়ে চাল আমদানি বেড়েছে। বাজারের ঊর্ধ্বমুখী চাহিদা আমদানি বৃদ্ধিতে প্রধান ভূমিকা রেখেছে।

এনজে

পাঠকের মতামত: