ঢাকা,রোববার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

২ শতাংশ বেড়েছে পেরুর তামা উত্তোলন

পেরুতে অক্টোবরে বেড়েছে তামা উত্তোলন। যা গত বছরের একই মাসের তুলনায় ২ শতাংশ বেশি। ওই মাসে আন্দিজ অঞ্চলের দেশটিতে ধাতুটির মোট উত্তোলন ছিল ২ লাখ ৪০ হাজার ৯৭ টন। চলতি সপ্তাহে এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে পেরুর খনি ও জ্বালানি মন্ত্রণালয়। খবর মাইনিং ডট কম।

বর্তমানে পেরু বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম তামা উত্তোলক দেশ। মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, সুইজারল্যান্ডভিত্তিক খনি কোম্পানি গ্লেনকোর পরিচালিত আন্টাপ্যাকে তামা খনি থেকে উত্তোলন বাড়ানোয় দেশটির মোট উত্তোলন বেড়েছে। খনিটিতে অক্টোবরে উত্তোলন বেড়েছে প্রায় ৩৬ শতাংশ। পাশাপাশি বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম তামা উৎপাদনকারী গ্রুপো মেক্সিকো পরিচালিত পেরুর সাউদার্ন কপার খনিতেও উত্তোলন কার্যক্রম প্রায় ৭ শতাংশ বেড়েছে।

এ বিষয়ে মাইনিং ডট কম জানিয়েছে, এ বছরের শুরুর দিকে পেরুতে সহিংস সরকারবিরোধী বিক্ষোভে তামা উত্তোলন ব্যাহত হয়েছিল। তা সত্ত্বেও চলতি বছরের অক্টোবর পর্যন্ত শিল্প ধাতুটির উত্তোলন ১৪ শতাংশ বেড়েছে। প্রথম ১০ মাসে মোট উত্তোলন দাঁড়িয়েছে ২২ লাখ ৫০ হাজার টনে।

গবেষণা সংস্থা উড ম্যাকেঞ্জির গত মে মাসে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আগামীতে মধ্য আফ্রিকার দেশ কঙ্গো প্রজাতন্ত্র বৈশ্বিক তামা উত্তোলনে পেরুকে পেছনে ফেলে দ্বিতীয় অবস্থান দখল করবে। ওই পূর্বাভাসের পর থেকে দক্ষিণ আমেরিকার দেশটির সরকার বলেছে, তারা তামা উত্তোলন সক্ষমতা দ্বিগুণ করবে।

এদিকে অক্টোবরে পেরুতে তামার পাশাপাশি অন্যান্য ধাতুর উত্তোলনও বেড়েছে। দেশটির সরকার জানিয়েছে, স্বর্ণ, রুপা, দস্তা ও সিসা উত্তোলন বেড়েছে। কমেছে লোহা ও মলিবডেনামের উৎপাদন।

এনজে

পাঠকের মতামত: