ঢাকা,সোমবার, ১০ জুন ২০২৪

স্যামসাং বাংলাদেশ নিয়ে এলো বিস্পোক ইনফিনিট লাইন রেফ্রিজারেটর

দেশের বাজারে বিস্পোক ইনফিনিট লাইন রেফ্রিজারেটর নিয়ে এসেছে স্যামসাং বাংলাদেশ। এই প্রিমিয়াম-বিল্ট ৪-ডোর ফ্রেঞ্চ ডোর রেফ্রিজারেটরের নান্দনিক ডিজাইন যেকোনো অন্দরসজ্জার সাথে মিশে গিয়ে ঘরকে করে তুলবে আরও আকর্ষণীয়।

এ নিয়ে স্যামসাং কনজ্যুমার ইলেকট্রনিকসের ডিরেক্টর ও হেড অব বিজনেস শাহরিয়ার বিন লুৎফর বলেন, “দেশের ক্রেতাদের জন্য বিস্পোক রেফ্রিজারেটরের এই লাইন-আপটি নিয়ে আসতে পেরে আমরা অত্যন্ত আনন্দিত। অত্যাধুনিক প্রযুক্তি এবং মড্যুলার ডিজাইনে তৈরি এই রেফ্রিজারেটর ক্রেতাদের জন্য সেরা অভিজ্ঞতা এবং পারফর্মেন্স নিশ্চিত করবে।”

ক্রেতাদের পছন্দ অনুযায়ী এ রেফ্রিজারেটরের নান্দনিক ডিজাইন, টেকসই ম্যাটেরিয়াল এবং প্রিমিয়াম ফিনিশিং পরিবর্তন করা যাবে। এর কালোত্তীর্ণ ডিজাইন যেকোনো অন্দরসজ্জায় এক অনন্য মাত্রা যুক্ত করবে। রেফ্রিজারেটরটি পাওয়া যাবে ৩টি নান্দনিক রঙে – ক্লিন ব্ল্যাক, সাটিন বেইজ+সাটিন গ্রে ও গ্ল্যাম ওয়াইট+গ্ল্যাম নেভি।

প্রিমিয়াম উপাদানে তৈরি এই রেফ্রিজারেটরের বাইরের অংশটি স্ক্র্যাচ প্রতিরোধী; তাই ওপর থেকে যেকোনো ধরনের দাগ মুছে ফেলা যাবে খুব সহজেই। ফ্রিজ এবং ফ্রিজার মিলিয়ে এই রেফ্রিজারেটরের ধারণ ক্ষমতা ৬৪৪ থেকে ৬৭০ লিটার এবং এর ভেতরের অংশও বেশ প্রশস্ত।

এই রেফ্রিজারেটরের স্বাচ্ছন্দ্যদায়ক স্টোরেজ থাকার কারণে নিশ্চিন্তে অনেক রকমের খাবার একসাথে রাখা যায়। এর মধ্যে আছে ‘ফ্লেক্স প্যান্ট্রি মোড’, ড্রয়ার যেখানে ব্যবহারকারী তাদের প্রয়োজন অনুযায়ী যেকোনো তাপমাত্রা নির্ধারণ করে রাখতে পারবেন। কাঁচা মাছ, মাংস ও সবজি থেকে শুরু করে যেকোনো রান্নার উপাদান একদম টাটকা রাখতে কাজ করে রেফ্রিজারেটরের ‘ট্রিপল কুলিং টেকনোলজি’। তাই, খাবারের আসল স্বাদ সংরক্ষিত থাকে দীর্ঘ সময়ের জন্য।

‘স্মার্টথিংস কানেক্টিভিটি’ ব্যবহারকারীদেরকে সুবিধামত রেফ্রিজারেটরের বিদ্যুৎ-ব্যবহার নিরীক্ষণ ও পরিচালনা করতে সাহায্য করবে। অর্থ সাশ্রয়ের পাশাপাশি কার্বন ফুটপ্রিন্ট কমানোর পরামর্শও প্রদান করবে এই ফিচার। এছাড়াও, এর ‘ডিজিটাল ইনভার্টার টেকনোলজি’ ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বিদ্যুৎ সাশ্রয় করবে। এবং এ রেফ্রিজারেটর কেনার ক্ষেত্রে পাওয়া যাবে ১০ বছরের ওয়্যারেন্টি। ৪-ডোর ফ্রেঞ্চ ডোর বিস্পোক ৬৪৪ লিটার বাজারে পাওয়া যাবে ৩২৯,৯০০ টাকায় এবং ৪-ডোর ফ্রেঞ্চ ডোর বিস্পোক ৬৭০ লিটার পাওয়া যাবে ৩৪৯,৯০০ টাকায়; সাথে রয়েছে নির্দিষ্ট ব্যাংকে ইএমআই সুবিধা।

এনজে

পাঠকের মতামত: