ঢাকা,রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

২১ মাসের সর্বনিম্নে অপরিবর্তিত এশিয়ান স্পট এলএনজির দাম

তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাসের (এলএনজি) চাহিদা কম এশিয়ার বাজারে।তার ওপর অঞ্চলটির প্রধান এলএনজি ব্যবহারকারী চীন, জাপান ও কোরিয়ায় জ্বালানিটির পর্যাপ্ত মজুদ রয়েছে। ফলে চলতি সপ্তাহেও এশিয়ান স্পট মার্কেটে এলএনজির দাম ২১ মাসের সর্বনিম্নে অপরিবর্তিত ছিল। খবর রয়টার্স।

উত্তরপূর্ব এশিয়ায় মে মাসে সরবরাহের জন্য প্রতি এমএমবিটিইউ এলএনজির মূল্য দাঁড়িয়েছে ১২ ডলার ৫০ সেন্টে। গত সপ্তাহেও জ্বালানিটি একই দামে বিক্রি হয়েছে।

এর আগে, গত বছরের আগস্টে রেকর্ড উচ্চতায় উঠেছিল এলএনজির দাম। কিন্তু ডিসেম্বরের শেষ দিকে তা কমতে শুরু করে। এ বছরের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত দাম কমেছে প্রায় ৫৫ শতাংশ। আর গত বছরের আগস্টের তুলনায় দাম ৮২ শতাংশ কমেছে। ওই সময় প্রতি এমএমবিটিইউ বিক্রি হয়েছিল ৭০ ডলার ৫০ সেন্টে।

ব্যাপক চাহিদা তৈরি হওয়ায় গত বছর এশিয়ার দেশগুলোর সঙ্গে ইউরোপের তীব্র প্রতিযোগিতা শুরু হয়। ইউরোপ স্পট মার্কেট থেকে বেশি দাম দিয়ে হলেও সরবরাহ নিশ্চিত করে। ফলে এশিয়ায় সরবরাহ নিম্নমুখী হয়ে পড়ে। কারণ রফতানিকারক দেশগুলো বেশি দাম পাওয়ায় ইউরোপের বাজারে বিক্রি বাড়িয়েছে। ইউরোপে সরবরাহ বাড়ানোর ক্ষেত্রে শীর্ষে রয়েছে বিশ্বের তৃতীয় শীর্ষ এলএনজি রফতানিকারক দেশ যুক্তরাষ্ট্র।

 

পাঠকের মতামত: