ঢাকা,সোমবার, ১০ জুন ২০২৪

৩ শতাংশ কমেছে ইস্পাতের বৈশ্বিক উৎপাদন

অপরিশোধিত ইস্পাতের বৈশ্বিক উৎপাদন আবারো কমেছে। ধাতুটির উৎপাদন অব্যাহত কমতে থাকায় বাজার সরবরাহ সংকটের পাশাপাশি লাফিয়ে বাড়ছে দাম। এতে অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছে শিল্প উৎপাদন খাত। উদ্বেগ বাড়ছে অর্থনৈতিক মন্দার। গত মাসে উৎপাদন কমে যাওয়ার পেছনে প্রধান প্রভাবকের ভূমিকা রেখেছে ইউরোপ। জ্বালানি সংকটের কারণে এ অঞ্চলের ইস্পাত খাতে বিপর্যয় নেমে এসেছে।

অপরিশোধিত ইস্পাতের বৈশ্বিক উৎপাদন নিয়ে ওয়ার্ল্ড স্টিল অ্যাসোসিয়েশনের সাম্প্রতিক প্রতিবেদনে দেখা গিয়েছে, গত মাসে ধাতুটির বৈশ্বিক উৎপাদন গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ৩ শতাংশ কমেছে। উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১৫ কোটি ৬ লাখ টনে।

অন্যদিকে চলতি বছরের জানুয়ারি-আগস্ট পর্যন্ত উৎপাদন হয়েছে ১২৫ কোটি ৩৯ লাখ টন। গত বছরের একই সময়ের তুলনায় উৎপাদন ৫ দশমিক ১ শতাংশ কমেছে।

বিশ্লেষকরা বলছেন, বিশ্বের শীর্ষ ইস্পাত উৎপাদক দেশ চীনে গত মাসগুলোয় উৎপাদন অব্যাহত কমেছে। তবে আগস্টে উৎপাদন গত বছরের একই সময়ের তুলনায় দশমিক ৫ শতাংশ বেড়ে ৮ কোটি ৩৯ লাখ টনে উন্নীত হয়। অন্যান্য মাসে উৎপাদন কমার পেছনে চীন প্রধান ভূমিকা রাখলেও এবার রেখেছে ইউরোপের দেশগুলো।

ওয়ার্ল্ড স্টিলের প্রতিবেদনের তথ্য বলছে, গত মাসে ইউরোপীয় ইউনিয়নের দেশগুলোয় উৎপাদন ১৩ দশমিক ৩ শতাংশ কমেছে। উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৯৭ লাখ টনে। বছরের প্রথম আট মাসে উৎপাদন হয়েছে ৯ কোটি ৫৩ লাখ টন, যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ৪ দশমিক ৩ শতাংশ।

এছাড়া ইউরোপের অন্যান্য দেশে গত মাসে ধাতুটির উৎপাদন ১৮ দশমিক ৬ শতাংশ কমে যায়। উৎপাদনের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৩৬ লাখ টন। এছাড়া বছরের প্রথম আট মাসে এসব দেশে উৎপাদন হয়েছে ৩ কোটি ১০ লাখ টন। সে হিসেবে উৎপাদন কমেছে ৮ দশমিক ৪ শতাংশ।

এনজে

পাঠকের মতামত: