ঢাকা,শুক্রবার, ২৪ মে ২০২৪

এলএমইতে তামার দাম কমে চার মাসের সর্বনিম্নে

বিশ্ববাজারে মঙ্গলবার কমেছে তামার দাম। এ নিয়ে চার মাসের সর্বনিম্নে পৌঁছেছে শিল্প ধাতুটির বাজার দর। মূলত ডলারের বিনিময় মূল্য বাড়ায় অন্য মুদ্রার গ্রাহকের জন্য আমদানি ব্যয় বেড়েছে। এতে চাহিদা কমেছে ধাতুটির। খবর বিজনেস রেকর্ডার।

লন্ডন মেটাল এক্সচেঞ্জে (এলএমই) মঙ্গলবার তিন মাস সরবরাহ চুক্তিতে প্রতি টন তামার দাম দশমিক ৬ শতাংশ কমেছে। টনপ্রতি মূল্য স্থির হয়েছে ৮ হাজার ৫ ডলার ৫০ সেন্টে। গত ২৬ মের পর এটিই সর্বনিম্ন দাম। এদিকে সিসার দামও পাঁচ মাসের সর্বনিম্নে। টনপ্রতি ধাতুটির মূল্য দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ১৩৭ ডলার ৫০ সেন্টে।

যুক্তরাষ্ট্রের সর্বশেষ মূল্যস্ফীতি চিত্র বিশ্লেষণ করে ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক আরো লম্বা সময় উচ্চ সুদহার ধরে রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। উচ্চ সুদহারের কারণে ট্রেজারি বন্ডের চাহিদাও বেড়ে গেছে। ফলে বিনিয়োগকারীদের কাছে ডলারে চাহিদা বাড়ায় আন্তর্জাতিক বাজারে মুদ্রাটি আরো শক্তিশালী হয়েছে। আর ডলারের দাম বেশি থাকলে অন্য মুদ্রার বিপরীতে তামার ক্রয় খরচ বেড়ে যায়। ফলে চাহিদা কমেছে ধাতুটির। এরই মধ্যে ডলারের বিনিময় মূল্য ১০ মাসের সর্বোচ্চে।

যুক্তরাষ্ট্র ও তাইওয়ানসহ এলএমইতে নিবন্ধিত গুদামগুলোয় তামার মজুদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ১ লাখ ৬৯ হাজার ৩০০ টনে। ২০২২ সালের মে মাসের পর এটিই বিদ্যুৎ ও অবকাঠামো নির্মাণ খাতে ব্যবহৃত ধাতুটির সর্বোচ্চ মজুদের রেকর্ড।

তাইওয়ান ও দক্ষিণ কোরিয়ার গুদামগুলোয় বেড়েছে সিসার মজুদ। এলএমইর সর্বশেষ হিসাবে মজুদ দাঁড়িয়েছে ৭৮ হাজার ৩২৫ টনে, যা ২০২১ সালের জুনের পর সর্বোচ্চ।

এলএমইতে অ্যালুমিনিয়ামের মূল্য দশমিক ৩ শতাংশ কমেছে। প্রতি টনের দাম নেমেছে ২ হাজার ৩১৩ ডলারে। দস্তার দামও টনপ্রতি ১ দশমিক ২ শতাংশ কমে ২ হাজার ৫৭০ ডলার ৫০ সেন্টে দাঁড়িয়েছে। তবে নিকেলের মূল্য বেড়েছে ১ দশমিক ৩ শতাংশ। প্রতি টনের দাম উঠেছে ২৩ হাজার ৭৮০ ডলারে।

পাঠকের মতামত: