ঢাকা,রোববার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪

৩৩ শতাংশ বেড়েছে ভারতের ভোজ্যতেল আমদানি

হিন্দু সম্প্রদায়ের আসন্ন দূর্গা পূজাকে সামনে রেখে ভোজ্যতেল আমদানির নতুন রেকর্ড ছুঁয়েছে ভারত। আগস্টে ১৮ লাখ ৭০ হাজার টন উদ্ভিজ্জ তেল আমদানি করেছে দেশটি। আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কম থাকায় ও দেশীয় তেলবীজ উৎপাদন কমে যাওয়ার আশঙ্কায় ভোজ্যতেল আমদানি বাড়িয়েছে ভারত। পরিসংখ্যান বলছে, ২০২২ সালের একই সময়ের চেয়ে ৩৩ শতাংশ বেশি ভোজ্যতেল আমদানি করেছে দেশটি। এ তথ্য জানিয়েছে সলভেন্ট এক্সট্র্যাক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়া (এসইএ)। খবর এসপি গ্লোবাল।

অভ্যন্তরীণ চাহিদা বাড়ায় মজুদ বাড়িয়েছে বিশ্বের বৃহত্তম ভোজ্যতেল আমদানিকারক দেশটি। এসইএ জানিয়েছে, চলতি বছরের আগস্টে গত বছরের জুলাইয়ের সর্বোচ্চ আমদানির রেকর্ডকেও ছাড়িয়ে গেছে। সে সময় ১৭ লাখ ৭০ হাজার টন ভোজ্যতেল আমদানি করেছিল ভারত।

মুম্বাইভিত্তিক উদ্ভিজ্জ তেলের ব্রোকারেজ সানভিন গ্রুপের গবেষণা প্রধান অনিলকুমার বাগানি বলেন, ‘‌চাহিদা বৃদ্ধির পাশাপাশি কৃষ্ণ সাগর শস্য চুক্তি বাতিল হওয়ায় আমদানি সরবরাহ হুমকির মুখে পড়ে। এ কারণে উদ্ভিজ্জ তেলের দাম উল্লেখযোগ্য হারে বেড়ে যায়। অন্যদিকে কম বৃষ্টিপাতের দরুন দেশীয় তেলবীজের প্রত্যাশিত ফলন না আসার শঙ্কা দেখা দিয়েছে। এতে উদ্বিগ্ন হয়ে ব্যবসায়ীরা ভোজ্যতেল আমদানি অব্যাহতভাবে বাড়িয়েছেন।’

চলতি ২০২২-২৩ বিপণন বছরের প্রথম ১০ মাসে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় ২৪ শতাংশ বেশি উদ্ভিজ্জ তেল আমদানি করেছে ভারত। এ বছর ১ কোটি ৪১ লাখ ২০ হাজার টন আমদানির কথা জানিয়েছে এসইএ। বছরওয়ারি হিসেবে এ বছর তেল আমদানির পরিমাণ সর্বকালের সর্বোচ্চে ওঠার সম্ভাবনা রয়েছে।

সম্প্রতি এসইএ বলেছে, চলতি বিপণন বছরে ১ কোটি ৬০ লাখ টন থেকে ১ কোটি ৬৫ লাখ টন ভোজ্যতেল আমদানির রেকর্ড হলেও আমরা অবাক হব না। ভারতের সর্বশেষ ভোজ্যতেল আমদানির রেকর্ড ছিল ২০১৬-১৭ বিপণন বছরে। ওই বছর দেশটি ১ কোটি ৫১ লাখ টন ভোজ্যতেল আমদানি করেছিল।

এসইএর তথ্য মতে, ভারতের ভোজ্যতেল আমদানির সিংহভাগই মূলত পামওয়েল। চলতি বছর গত বছরের চেয়ে ১৩ দশমিক ৭ শতাংশ বেশি পামওয়েল এসেছে। এ বছর পামওয়েলের মোট আমদানি দাঁড়িয়েছে ১১ লাখ ৩০ হাজার টনে, যা গত জুলাইয়ের ১০ লাখ ৯০ হাজার টনের চেয়ে ৪ শতাংশ বেশি।

আগস্টে সয়াবিন আমদানি ৪ দশমিক ৫৬ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৫৭ হাজার ৮৯০ টন। আর জুলাইয়ে সয়াবিন আমদানির পরিমাণ ছিল ৩ লাখ ৪২ হাজার ২৭০ টন। গত বছরের চেয়ে এ বছরে জুলাইয়ে প্রায় ১ লাখ টন বেশি সয়াবিন আমদানি করা হয়েছে। এসইএ জানাচ্ছে, ২০২২ সালের জুলাইয়ে ২ লাখ ৪৪ হাজার ৬৯৭ টন সয়াবিন এসেছে।

আগস্টে সূর্যমুখী তেলের আমদানি ১২ শতাংশ বেড়ে ৩ লাখ ৬৫ হাজার ৮৭০ টন হয়েছে। জুলাইয়ে যার পরিমাণ ছিল ৩ লাখ ২৭ ২৫৯ টন। আর গত বছরের একই মাসে ১ লাখ ৩৫ হাজার ৩০৮ টন সূর্যমুখী তেল কিনেছিল ভারত।

এনজে

পাঠকের মতামত: